বুধবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১২

দেওবন্দীগং রা চরম শ্রেনীর কাফির । তাদের কিছু ভয়ংকর আক্বীদা নিম্নে দেয়া হলো। ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১২ রাত১:২৬ দেওবন্দীদের কথিত মুরব্বীদের কিছু আক্বীদা দেখুন। (১) আল্লাহ মিথ্যা বলতে পারেন। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া , ১ম খন্ড, পৃষ্ঠা ১৯। রশিদ আহমদ গাংগুহী, তালিফাতরশিদিয়া, কিতাবুল আক্বাইদ অধ্যায়, পৃষ্ঠা ৯৮। খলীল আহমদ আম্বেটী, তাজকিরাতুল খলীল, পৃষ্ঠা ১৩৫। মেহমুদ হাসান, আল-জিহাদুল মুগিল, পৃষ্ঠা ৪১। (২) আল্লাহ্‌ তাঁর বান্দা ভবিষ্যতে কি করবে তা আগে থেকে বলতে পারেন না। বান্দাকর্ম সম্পাদনের পর আল্লাহ্‌ তা জানতে পারেন। (নাঊযুবিল্লাহ) হুসাইন আলী, তাফসীরে বুঘাতুল হাইরান, পৃষ্ঠা ১৫৭-১৫৮। (৩) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর জ্ঞানের চেয়ে শয়তান ও হযরত আযরাঈল আলাইহিস্‌ সালাম-এর জ্ঞান বেশী। (নাঊযুবিল্লাহ) খলীল আহমদ আম্বেটী, বারাহীন-ই-কাতেয়া, পৃষ্ঠা৫১। (৪) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর ভাগ্য সম্পর্কে জানতেন না এমনকি দেয়ালের ওপাশ সম্পর্কেও না। (নাঊযুবিল্লাহ) খলীল আহমদ আম্বেটী, বারাহীন-ই-কাতেয়া, পৃষ্ঠা৫১। (৫) নবীর (হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর) যদি কিছু ইলমে গায়েব থেকেও থাকে তাহলে এতে তাঁর বিশেষত্ব কী ? এমনইলমে গায়েব তো সকল চতুষ্পদজন্তু, পাগল ও শিশুরও আছে। (নাঊযুবিল্লাহ) আশরাফ আলী থানভী, হিফজুল ঈমান, পৃষ্ঠা ৭। (৬) “রহ্‌মতুল্লিল আলামিন” হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর কোন বিশেষ লক্বব নয়। তাঁর উম্মতও “রহ্‌মতুল্লিল আলামিন” হতে পারে। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া, ২য় খন্ড, পৃষ্ঠা১২। (৭) সাধারণ মানুষের কাছে হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম খাতামুন নাবিয়্যীন হলেও বুযুর্গ ব্যক্তির কাছে নয়। (নাঊযুবিল্লাহ) কাশেম নানুতুবী, তাহযীরুন্নাছ, পৃষ্ঠা ৩। (৮) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আগে বাসর্বশেষে আসার মধ্যে কোন ফযিলত নেই। ফযিলত হলো মুল নবী হওয়ার মধ্যে। তাঁর পরেযদি এক হাজার নবীরও আগমন মেনে নেয়া হয় তাতেও হুযুরপাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর খতমে নবুয়তের কোন রূপ বেশ-কম হবে না। (নাঊযুবিল্লাহ) কাশেম নানুতুবী, তাহযীরুন্নাছ, পৃষ্ঠা ২৫। (৯) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম দেওবন্দের উলেমাদের কাছ থেকে উর্দূ ভাষা শিখেছেন। (নাঊযুবিল্লাহ) খলীল আহমদ আম্বটী, বারাহীন-ই-কাতেয়া, পৃষ্ঠা ২৬। (১০) একজন নবীর জন্য সকল মিথ্যা থেকে মুক্ত ও নিস্পাপ হওয়ার প্রয়োজন নেই। (নাঊযুবিল্লাহ) কাশেম নানুতুবী, শফীয়াতুল আক্বাইদ, পৃষ্ঠা ২৫। (১১ ) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে তাগুদ (শয়তান) বলা যায়। (নাঊযুবিল্লাহ) হুসাইন আলী, তাফসীর বুঘাতুলহাইরান, পৃষ্ঠা ৪৩। (১২) আমলের মাধ্যমে নবী-রসূলের চেয়ে নবী-রসূলগণের উম্মত মর্যাদাবান হয়। (নাঊযুবিল্লাহ) কাশেম নানুতুবী, তাহযীরুন্নাছ, পৃষ্ঠা ৫। (১৩) আমি হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে পুলসিরাত থেকে পড়া থেকে রক্ষা করেছি। (নাঊযুবিল্লাহ) হুসাইন আলী, তাফসীর বুঘাতুলহাইরান, পৃষ্ঠা ৮। (১৪) কলেমা শরীফ-এ “লা ইলাহা ইল্লালাহু মুহমাদুর রসূলুল্লাহ্‌” এর পরিবর্তে“লা ইলাহা ইল্লালাহু আশরাফ আলী রসূলুল্লাহ্‌” এবং দরূদ শরীফ-এ “আল্লাহুম্মা ছল্লি আলা সাইয়্যিদিনা নাবিয়ানা মুহম্মদ” এর পরিবর্তে “আল্লাহুম্মা ছল্লি আলা সাইয়্যিদিনা নাবিয়ানা আশরাফ আলী” পড়লে কোন ক্ষতি হবে না। (নাঊযুবিল্লাহ) আশরাফ আলী থানভী, রিসালা আলইমদাদ, পৃষ্ঠা ৩৪-৩৫। (১৫) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহুআলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর বিলাদত শরীফ (জম্মদিন) উপলক্ষে ঈদে মিলাদুন্নবী পালন করা আর হিন্দুদের দেবতা কৃষ্ণের জম্ম দিন পালন করা একই। (নাঊযুবিল্লাহ) খলীল আহমদ আম্বেটী, বারাহীন-ই-কাতেয়া, পৃষ্ঠা১৪৮। (১৬) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহুআলাইহি ওয়া সাল্লাম -এর বিশেষত্ব দাজ্জালের মত। (নাঊযুবিল্লাহ) কাশেম নানুতুবী, আবে হায়াত, পৃষ্ঠা ১৬৯। (১৭) হুযুর পাক ছল্লাল্লাহুআলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাদের বড় ভাই এবং আমরা তাঁর ছোট ভাই। (নাঊযুবিল্লাহ) খলীল আহমদ আম্বেটী, বারাহীন-ই-কাতেয়া, পৃষ্ঠা৩। (১৮) দরূদ তাজ মূল্যহীন এবং এটি পাঠ করা নিষিদ্ধ। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী্,‌ তাজকীরাতুর রশীদ, ২য় খন্ড,পৃষ্ঠা ১১৭। জাকারিয়া কান্দালভী দেওবন্দী, ফাজায়েলে আমল, পৃষ্ঠা ৫২-৫৩। (১৯) মীলাদ শরীফ, মীরাজ শরীফ, ফাতিহা খাওয়ানী, চেহলাম, সোয়েম এবং ঈছালে সওয়াব সমস্ত আমল শরীয়ত বিরোধী, বিদায়ত এবং কাফের-হিন্দুদের রেওয়াজ। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া, ২য় খন্ড, পৃষ্ঠা১৪৪ এবং ১৫০। রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া, ৩য় খন্ড, পৃষ্ঠা৯৩-৯৪। (২০) স্থানীয় কাক খাওয়া সওয়াবের কাজ। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া, ২য় খন্ড, পৃষ্ঠা১৩০। (২১) হোলী ও দিওয়ালীর ভোগ খাওয়া এবং উপহার গ্রহণ করাসওয়াবের কাজ। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া, ২য় খন্ড, পৃষ্ঠা১২৩। (২২) হিন্দুদের সুদের টাকা দ্বারা নির্মিত পানির চৌবাচ্চা (সাবীল) থেকে পানিপান করা জায়িয ও অধিক সওয়াবের কাজ। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া, ৩য় খন্ড, পৃষ্ঠা১১৩-১১৪। (২৩) রসূল (ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) মরে মাটির সাথে মিশে গেছেন। (নাঊযুবিল্লাহ) রশিদ আহমদ গাংগুহী, ফতওয়া রশিদিয়া (২৪) কোন কিছু ঘটানোর জন্য হুযুর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইচ্ছা পোষণ করার গুরুত্ব নেই। (নাঊযুবিল্লাহ) কাশেম নানুতুবী, আবে হায়াত, পৃষ্ঠা ১৬৯।